ব্লগিং বিনিয়োগ কত? কিভাবে প্রফেশনাল ব্লগার ক্যারিয়ার শুরু করবেন

লেখাটি পড়া শুরু করেছেন তার মানে আপনি ব্লগিং করে অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে চান। অথবা আপনি ব্লগিং শুরু করতে চাচ্ছেন। এই লেখার ভিতর দিয়ে আপনি জানতে পারবেন কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন এবং কত টাকা ইনভেস্ট করতে হবে।

ব্লগিং করার জন্য আপনার যা যা করার দরকার তা এই লেখার মধ্যে পাবেন। এর জন্য আপনাকে দ্বিতীয় কোন ব্লগ খোজার দরকার হবে না।

কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন

বাংলা ৮ম বৃহত্তম ভাষা। ৮ম বৃহত্তম ভাষা হওয়ার পরেও বাংলা ভাষায় ব্লগ খুবেই কম। কিন্তু দিন দিন বাংলা ব্লগের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই এটাই সময় বাংলা ব্লগ শুরু করার। এবং দিন দিন বাংলা ব্লগের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাচ্ছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

আর একটি বিষয় বলে রাখা ভালো। আপনি যদি মনে করেন আজ ব্লগিং শুরু করলে কালকে থেকে আয় শুরু করতে পারবেন তা কিন্তু নয়। ব্লগিং শুরু করার পর মিনিমাম ৬ থেকে ৭ মাস সময় লাগবে আয় শুরু করতে।

আমি ব্লগার হতে চাই

সিদ্ধান্ত নেওয়াটা খুবেই জরুরি ব্লগিং শুরু করার আগে। আপনি সঠিক ভাবে সিদ্ধান্ত নিতে না পারলে সফল হতে পারবেন না। সফল হওয়ার জন্য বা ব্লগার হিসাবে ক্যারিয়ার শুরু করার জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়াটা জরুরি।

আপনার মাথার মধ্যে সেটাপ করে নেন আগামী ৭ থেকে ৮ মাস আপনি পরিশ্রম করবেন এবং পরিশ্রমের ফলের আসা করবেন না।

শুধু ৭ থেকে ৮ মাস যে শুধু পরিশ্রম করতে হবে তা নয়। তার সাথে সাথে আপনার বিনিয়োগ করতে হবে। বিনিয়োগ কত করতে হবে তার জন্য আমি নিচের আলোচনার বিস্তারিত বলব।

ধরে নিলাম আপনার সিদ্ধান্ত নেওয়া শেষ। এখন কাজ শুরু করতে চান তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

ব্লগিং বিষয় নিবার্চন করুন

খাতা-কলম, কম্পিউটার, ল্যাপটপ নিয়ে বসে পড়ুন। এবার চিন্তা করা শুরু করুন কোন বিষয়ে ব্লগিং শুরু করবেন। আপনি চাইলে আপনার পছন্দের বিষয় নিয়ে ব্লগিং শুরু করতে পারেন। তবে আমার ব্যক্তিগত মতামত হল আপনার পছন্দের বিষয় বাছাই না করে, যে টপিক দিয়ে আয় ভালো হবে তা নির্বাচন করতে ।

টপিক বাছাই করার জন্য নিচের দেওয়া লিংকে যেতে পারেন। এখানে যে ইমেজ টা দেখছেন তার একটি সেই রকম একটি অপশন দেখতে পাবেন এবং সেখান থেকে টপিক বাছাই করতে পারবেন।

Start Blogging

Google Adsense গিয়ে অঞ্চল বেছে বিভাগ নির্বাচন করে আয় যাচাই করতে পারবেন। যা হোক তার পরেও আমি বিভাগ গুলো নিচে উল্লেখ করছি।

  • অটো ও যানবাহন
  • অনলাইন কমিউনিটি
  • অর্থনৈতিক
  • আইন ও সরকার
  • ইন্টারনেট ও টেলিকম
  • কম্পিউটার ও ইলেকট্রনিক্স
  • কেনাকাটা
  • খবর
  • খাদ্য ও পানীয়
  • খেলাধূলা
  • গৃহপালিত পশু ও প্রাণী
  • গেম
  • চাকরি ও শিক্ষা
  • বই ও সাহিত্য
  • বাড়ি ও বাগান
  • বিজ্ঞান
  • ব্যবসা ও শিল্প
  • ভ্রমণ
  • রিয়েল এস্টেট
  • রেফারেন্স
  • লোকজন ও সমাজ
  • শিল্পকলা ও বিনোদন
  • সখ ও অবকাশ
  • সৌন্দর্য ও ফিটনেস
  • স্বাস্থ্য

উপরের যে কোন একটি বিষয় নিয়ে আপনি ব্লগিং শুরু করতে পারেন। ব্লগের টপিক বাছাই করার দ্বাতীয় সম্পূর্ণ ভাবে আপনার।

ব্লগের ডোমেইন নাম নির্বাচন

ব্লগের নাম আপনি আপনার নামে রাখতে পারেন। যেমন একজনের নাম Rahan, তাহলে তার ব্লগের নাম সে দিতে পারে Rahan.com or Rahanblog.com এক কথায় আপনার ইচ্ছা।

ব্লগিং ডোমেইন এবং হোস্টিং

তবে আমার মতামত নিতে চাইলে বলব ব্লগের নাম হওয়া উচিত নির্বাচিত টপিক রিলেটেড। যেমন আপনি টপিক হিসাবে বাছাই করলেন শিক্ষা তাহলে নাম হওয়া উচিত, শিক্ষার যে বিষয় কভার করবেন তার উপর। যেমন, healtheducation.com, matheducation.com, banglaeducation.com, etc.

তবে আপনার বাছাই করা ডোমেইন নামটি অন্য কেউ আগে নিয়ে থাকলে আপনি দ্বিতীয় বার নিতে পারবেন না। আপনি চাইলে আগে রেজিঃ করা ডোমেইন নাম ক্রয় করতে পারেন তাবে সে ক্ষেত্রে অনেক খরচ আছে।

ডোমেইন রেজিঃ করা খুবেই সহজ। এটা নিয়ে চিন্তা করার কোন কারন নেই । একটি ডোমেই রেজিঃ করতে আপনার সব্বোচ খরচ হবে ৮৫০ থেকে ১০০০ টাকা।

তার পরেও একটু বলি, ধরলাম আপনি আপনার ব্লগের নাম ক্রয় করার জন্য webhostbd কোম্পনি টি সিলেক্ট করলেন। এবার তাদের ওয়েবসাইটে গিয়ে Client Area নামে একটি অপশন পাবেন সেখানে ক্লিক করবেন। ক্লিক করার পর নিচের ইমেজের মত একটি ইমেজ আসবে। ছবিতে দেখুন লাল বক্সের ভিতর রেজিঃ বাটনে ক্লিক করতে হবে।

ব্লগ ডোমেইন রেজিঃ

উপরের ছবির রেজিঃ বাটনে ক্লিক করে নিদিষ্ট তথ্য দিয়ে রেজিঃ সম্পূর্ণ করে ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় করুন।

ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় করতে পারেন WEBHOSTBD থেকে।

ব্লগের জন্য ডোমেইন ক্রয় করার সাথে সাথে হোস্টিং ক্রয় করতে হবে। শুরু অবস্থায় ২ থেকে ৩ জিবি হোস্টিং ক্রয় করলে ভালো হবে। ২ থেকে ৩ জিবি হোস্টিং ক্রয় করার জন্য খরচ হবে ১৫০০ থেকে ২০০০ হাজার টাকা।

এবার ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় করা শেষ হলে ব্লগ ডিজাইন করতে হবে। আমার সাজেশন হবে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ব্লগ সাইট তৈরি করুন। সময় খুব কম লাগে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ব্লগ সাইট ডিজাইন করতে।

ব্লগ সাইট ডিজাইন করার আগে লক্ষ রাখবেন

প্রফেশনাল ডিজাইনারঃ আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগ সাইটি প্রফেশনাল ডিজাইনার দিয়ে ডিজাইন করাবেন। আপনার উদ্দশ্য যেহেতু অর্থ আয় করার সুতরাং সেই দিকটা খেয়াল রাখতে হবে। আপনি কোথায় কোথায় বিজ্ঞাপন প্রকাশ করবেন আগে থেকে নির্বাচন করুন।

ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগ ডিজাইন

আপনি এখন যে ব্লগ টি পড়ছেন তার ডিজাইন সম্পূর্ণ ভাবে আমার করা। আপনি চাইলে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন আপনার ব্লগটি ডিজাইন করার জন্য।

মোবাইল ফ্রেন্ডলি ব্লগ সাইট ডিজাইন করতে হবে। কারন আপনার ওয়েবসাইটের ম্যাক্সিমাম ভিজিটর আসবে মোবাইল ফোন থেকে।

মোবাইল ফোন দিয়ে আয় করা সম্ভব কী

প্রয়োজনীয় প্লাগিন সেটাপঃ একটি ব্লগ সাইটের SEO থেকে শুরু অন্য সকল কাজের জন্য প্লাগিন ইন্সটল করতে হয়। অপ্রয়োজনীয় প্লাগিন সেটাপ করার দরকার নেই। কারন অপ্রয়োজনীয় প্লাগিন ওয়েবসাইটের গতির সমস্যা সৃস্টি করে।

সম্পূর্ণ একটি ব্লগ সাইট ডিজাইন করার জন্য খরচ হবেঃ ৭০০০ থেকে ৮০০০ হাজার টাকা।

ব্লগ আর্টিকেল

একটি ব্লগের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ পাট আর্টিকেল। একজন ভিজিটর যখন আপনার ব্লগে প্রবেশ করবে তখন সেই ভিজিটর আপনার ব্লগে থাকবে কী না নির্ভর করবে আপনার ব্লগের আর্টিকেলের উপর। আপনার ব্লগ আর্টিকেল যত বেশি ভালো হবে তত বেশি ভিজিটর আপনার ব্লগে আসবে।

ব্লগ আর্টিকেল লেখার জন্য সব থেকে বেশি খরচ হবে আপনার। একটি ১০০০ ওয়াডের্র ব্লগ লেখার জন্য খরচ হবে মিনিমাম ৮ থেকে ১০ ডলার। তার মানে বাংলাদেশী 400 থেকে 500 টাকা।

ব্লগ কন্টেন্ট রাইটিং

তবে হ্যাঁ আপনি ১০০০ ওয়ার্ড লেখার জন্য ২০০ থেকে ৩০০ টাকা দিতে পারেন। এটা অবশ্য নির্ভর করে রাইটারের উপর। যেমন আমার কথায় ধরুন, আমি প্রতি ১০০০ ওয়ার্ড লেখার জন্য 400 থেকে 500 টাকা নিয়ে থাকি।

আপনার ব্লগ সাইটে ৪ থেকে ৫ মাসের মধ্যে ১০০ থেকে ১৫০ আর্টিকেল থাকার দরকার আছে।

তার মানে প্রফেশনাল রাইটার দিয়ে ১০০ আর্টিকেল লেখার জন্য খরচ হবে ৪০,০০০ থেকে ৫০,০০০ হাজার টাকা। মধ্য মানের রাইটার দিয়ে লিখে নিলে খরচ হবে ১০,০০০ থেকে ১৫,০০০ হাজার টাকা।

আপনি নিজে ব্লগ লিখতে চাইলে নিচের লিংকে গিয়ে প্রসেস গুলো দেখতে পারেন।

ব্লগ লেখার নিয়ম বা কৌশল

যেহেতু Blogging থেকে Passive income করার সুযোগ আছে সুতরাং ইনভেস্ট করতে হবে।

ব্লগিং এমন একটি ক্যারিয়ার যা একবার আয় দেওয়া শুরু করলে তার শেষ কখনো হবে না। বিষয়টা এমন একবার বাড়ি তৈরি করুন তারপর ভাড়া দিয়ে টাকা আয় করুন। বাড়ির যেমন মেইনটেইন করতে হয় তেমনি ব্লগ সাইট মেইনটেইনের জন্য খরচ হবে।

ব্লগ সাইট মেইনটেইন বলতে যা বুঝাছি তাহল নিয়মিত ব্লগ পোষ্ট করা, সিকিউরিটি চেক, ডোমেইন এবং হোস্টিং পেমেন্ট ইত্যাদি।

কত ভাবে ব্লগ থেকে আয় করা যায়

ব্লগ ইমেজ

একটি ব্লগের জন্য ইমেজ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আমি ব্যক্তিগত ভাবে অনেক বাংলা এবং ইংরেজি কন্টেন্ট লিখেছি। সেই অভিজ্ঞতা থেকেই বলছি ব্লগের সাথে ইমেজ যুক্ত করাটা জরুরি।

ইমেজ ব্লগের ভিজিটর ইনগেজমেন্ট বৃদ্ধি করে। আপনাকে অবশ্যই পেইড ইমেজ ক্রয় করতে হবে। কারন ফ্রি ইমেজ আপনার ব্লগের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে ততটা সহযোগিতা করে না। আপনাকে পেইড ইমেজ ব্যবহার করতে হবে।

পেইড ইমেজ ক্রয় করার জন্য আমি সাজেস্ট করব Canva কে। Canva থেকে প্রতি মাসে মাত্র ১৩ ডলারের মত খরচ করে আনলিমিটেড ছবি ডাউনলোড দিতে পারবেন।

ব্লগিং করার জন্য সর্বমোট কত টাকা খরচ হবে

ব্লগিং শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত হিসাব করলে আপনার মোট খরচ হবে ১ লক্ষ টাকা থেকে ১.৫ লক্ষ টাকার মত।

ইংরেজি ব্লগ তৈরি করলে এর থেকে বেশি খরচ হবে। ইংরেজি ব্লগের জন্য মোট খরচ হবে মিনিমাম ২ থেকে ৩ লক্ষ টাকা।

Blogging investment

ব্লগ তৈরি করা শেষ হলে খরচ হবে ব্লগ র‌্যাঙ্ক করার জন্য। একটি ব্লগের ব্যাকলিংক তৈরি করার জন্য খরচ হবে ১ লক্ষ টাকার মত। ব্লগ র‌্যাঙ্ক করার জন্য ব্যাকলিংক খুবেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

ওয়েবসাইটের ব্যাকলিংক করার জন্য আপনি যে কোন এসইও এজেন্সির সাথে যোগাযোগ করতে হবে। বাংলাদেশে অনেক এসইও এজেন্সি আছে যাদের মাধ্যমে আপনি ব্যাকলিংক তৈরি করার কাজটি করতে পারবেন।

ব্লগিং কে ক্যারিয়ার হিসাবে নেওয়াটা কতটা যৌক্তিক

আপনি সঠিক ভাবে প্রতিটি কাজ করতে পারলে ব্লগ সাইট প্রতিষ্টিত হবে, এক্ষেত্রে কোন ধরনের সন্দেহ নেই। এবং ব্লগিং কে ক্যারিয়ার হিসাবে নিতে পারবেন। ব্লগিং করার ক্ষেত্রে সব থেকে বড় বাঁধা সময়। কারন ব্লগ থেকে অর্থ আয় শুরু মিনিমাম সময় লাগবে ৭ থেকে ৮ মাস।

ব্লগিং ক্যারিয়ার

আমার ব্যক্তিগত মতামত হল অন্য কোন পেশার সাথে সাথে ব্লগিং শুরু করতে হবে। আর আপনার যদি অর্থ থাকে তাহলে সম্পূর্ণ ভাবে একজন ব্লগার হিসাবে যাত্রা শুরু করতে পারেন।

ব্লগিং করে কত টাকা আয় করা সম্ভব

আমি সর্বশেষ একটি কথায় বলতে পারি। ব্লগিং ভালো একটি পেশা যদি আপনি সঠিক ভাবে করতে পারেন। এবং আপনার আয় নিয়ে কোন চিন্তা করতে হবে না। আপনি প্রতি মাসে মিনিমাম ৫০,০০০ থেকে ৬০,০০০ টাকা প্রতি মাসে আয় করতে পারবেন।

আমাদের ব্লগিং সার্ভিস প্যাকেজ

✅ ব্লগ সাইট ডিজাইন ( প্রিমিয়াম থিম দিয়ে)

✅ প্রয়োজনীয় প্লাগিন সেটাপ

✅ Computer and Mobile Friendly Customize Design

✅ Google Analytics Setup, Sitemap Submit

✅ লাইফ টাইম সাপোর্ট

উপরের সমস্ত কাজ গুলো করে দেওয়া হবে মাত্র ৫,০০০ হাজার টাকায়। ( ডোমেইন এবং হোস্টিং আপনাকে ক্রয় করতে হবে )

আমাদের কাছ থেকে সার্ভিস গুলো নেওয়া জন্য যোগাযোগ করুন। আপনি ব্লগিং শুরু করতে চাইলে পরামর্শ নেওয়ার জন্য যোগাযোগ করতে পারেন

ডান থেকে বামে টানুন আরও পোষ্ট দেখার জন্য