মোবাইলে ফ্রিল্যান্সিং

Freelancing Jobs

মোবাইলে ফ্রিল্যান্সিং করার উপায়। প্রায় এই লেখাটি গুগলে সার্চ করতে দেখা যায়। এই একটি মাত্র কারনে লেখাটি লেখা হচ্ছে। আমি এই লেখার মাধ্যমে বেসিক কিছু বিষয় আলোচনা করব যা থেকে আপনি বুঝতে পারবেন মোবাইলের মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং করা যায় কি! না।

মোবাইল দিয়ে কি ফ্রিল্যান্সিং করা যায়?

মোবাইলে ফ্রিল্যান্সিং

মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করা সম্ভব কি! প্রথমে এই প্রশ্নটির উত্তর দেওয়া যাক। এই প্রশ্নের উত্তর হচ্ছে দুইটি এক. মোবাইল দিয়ে নিদিষ্ট কিছু ফ্রিল্যান্সিং করা সম্ভব। দুই. সকল ধরনের ফ্রিল্যান্সিং কাজ মোবাইল দিয়ে করা সম্ভব নয়। মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করা যায় এমন কিছু উপায় নিয়ে উল্লখ্য করা হল।

  • অনলাইনে Survey করার কাজ গুলো করা সম্ভব। Survey কাজ গুলো প্রশ্ন উত্তর টাইপের কাজ সুতরাং যে কোন অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস দিয়ে Survey কাজ করা য়ায়। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে আমাদের দেশে আপনি Survey করার কাজ পাবেন না।
  • Microwork কাজ গুলো মোবাইল ডিভাইস দিয়ে করা যায়। মাইক্রোওয়ার্ক বলতে ফেসবুক শেয়ার, ইন্সটাগ্রাম শেয়ার, পোষ্ট লাইক, ইউটিউব ভিডিও লাইক বা শেয়ার, ইত্যাদি অনেক ছোট ছোট কাজ পাওয়া যায় অনলাইনে যা মাইক্রোওয়ার্ক নামে পরিচিত। Micro Work Website: Get Paid আপনি Google সার্চ করলে অনেক ধরনের মাইক্রোওয়ার্ক ওয়েবসাইট পাবেন। এই সকল কাজ গুলো মোবাইল ফোন দিয়ে করা সম্ভব।
  • লেখা লেখির কাজ গুলো মোবাইল দিয়ে করা যায়। কিন্তু আপনি কাজ করার সময় কতটা ইজি ফিল করবেন সেটাই ব্যাপার।
  • অ্যাপস দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য মোবাইল ফোনেই যথেস্ট।
  • সোস্যাল মিডিয়া ম্যানেজারের কাজ গুলো খুব সহজে মোবাইল দিয়ে করা যায়। যেমন ছবি পোষ্ট করা, স্ট্রাটাস লেখা, শেখার করা, ভিডিও আপলোড করা, ইত্যাদি কাজ গুলো যা মোবাইল ফোন দিয়ে করা সম্ভব।

প্রফেশনাল ফ্রিল্যান্সিং কি মোবাইল দিয়ে করা সম্ভব?

এই প্রশ্নটার উত্তর হচ্ছে না। আপনি যে কোন ধরনের প্রফেশনাল ফ্রিল্যান্সিং কাজ মোবাইল ফোন দিয়ে করা সম্ভব নয়। কি কারনে সম্ভব নয় নিচে তুলে ধরা হল।

  • ওয়েবসাইট থেকে তথ্য কলেকশন করে এক্সেল বা পিডিএফ ফাইল তৈরি করে ক্লাইন্টকে প্রভাইড করতে হবে। যা মোবাইল ফোন দিয়ে করা সম্ভব নয়।
  • গ্রাফিক্স ডিজাইনের কোন কাজেই মোবাইল ফোন দিয়ে করা সম্ভব নয়। আপনি যদি মনে করে কোন অ্যাপস ব্যবহার করে গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ করবেন তবে ভুল ভাবছেন কারন প্রফেশনাল কোন কাজ মোবাইল দিয়ে করা যায় না।
  • সফটওয়্যার রিলেটেড যে কোন ধরনের কাজ যেমন ভিডিও এডিটিং, ইমেইল মার্কেটিং, ডাটা রিসার্স, ইত্যাদি কাজ গুলো কখনো মোবাইল দিয়ে করা সম্ভব নয়।
  • ডিজিটাল মার্কেটিং রিলেটেড যে সকল কাজ আছে তার জন্য অবশ্যই আপনার ল্যাপটপ বা কম্পিউটার লাগবে।

মোট কথা আপনি একজন প্রফেশনাল ফ্রিল্যান্সার হতে চাইলে মোবাইল দিয়ে সেটা কখনো হতে পারবেন না।

আমার মোবাইল আছে ল্যাপটপ বা কম্পিউটার নেই তাহলে আমি কি করব?

আমি বলব আপনি সত্যি সত্যি ফ্রিল্যান্সিং করে নিজের ক্যারিয়ার দাঁড় করাতে চাইলে কম্পিউটার বা ল্যাপটপের কোন বিকল্প নেই। হ্যাঁ এটা সম্ভব যে অনেক কম টাকা খরচ করে একটা সেকেন্ডহ্যান্ড ক্রয় করে কাজ করতে পারবেন। তারপরেও একটি লো ব্যাকগ্রাউন্ডের ল্যাপটপ বা কম্পিউটার দিয়ে অনেক কাজ করতে পারবেন না।

একটা বাজেট করা যাক: আপনি যেহেতু মোবাইল ফোন থেকে এই লেখাটি পড়ছেন সুতরাং আমি ধরে নিলাম আপনার একটি এ্যানড্রয়েড ফোন আছে। এবার একটি নিম্ন মধ্য মানের ল্যাপটপ বা কম্পিউটার ক্রয় করতে চাইল আপনার খরচ হবে মিনিমাম ১৫,০০০ থেকে ৩০,০০০ হাজার টাকা। নেট কানেকশন আপনি Mobile Hotspot দিয়ে চালাতে পারবেন।

দেখুন ভাই/বোন আপনি ইনকাম করতে চাচ্ছেন সুতরাং কিছু তো ইনভেস্ট আপনাকে করতেই হবে। যে কোন ধরনের কাজ করার জন্য নিদিষ্ট একটি ডিভাইসের দরকার হয়। এবার আপনি ভেবে দেখুন আপনি কি করবেন।

বিস্তারিত আরও পড়ুর

error: Content is protected !!