সফল ভাবে অনলাইনে ব্যবসা করার উপায় বা কৌশল

সফল ভাবে অনলাইনে বিজনেস আইডিয়া

বর্তমান সমাজ ব্যবস্থার সাথে তাল মিলিয়ে ব্যবসা করতে চায় সবাই। কিন্তু বেশির ভাগ ক্ষেত্রে ব্যবসা করতে গিয়ে বিভিন্ন বাঁধা বা সমস্যার মুখোমুখি হন। আজকের এই আলোচনায় তুলে ধরার চেষ্টা করব কি ভাবে অনলাইনে পণ্য বিক্রয় করবেন। এবং অনলাইনে ব্যবসা শুরু করার কিছু বেসিক নিয়ম নীতি।

আশা করছি এই লেখাটি আপনাদের ভালো লাগবে……………..

এই আলোচনার মধ্যে যা যা থাকবে

  • অনলাইনে বিক্রয় যোগ্য পণ্য নির্বাচন করার বিভিন্ন উপায়।
  • কি ভাবে মার্কেটিং করবেন এবং অল্প টাকা কি ভাবে সফল মার্কেটিং করবেন। সাথে থাকবে মার্কেটিং করার বিভিন্ন ধরনের উপায় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা।
  • পণ্যের প্যাকেজিং এবং ডেলিভারি দেওয়ার ক্ষেত্রে যে সব বিষয়ের উপর গুরুত্ব প্রদান করতে হবে তার বিস্তারিত।
  • বিক্রয়কৃত পণ্য ফেরত নেওয়ার জন্য করনীয় উপায়।
  • বিক্রয়কৃত পণ্যের টাকা গ্রহনের ক্ষেত্রে কোন কোন মাধ্যম ব্যবহার করতে পারেন।
  • বাংলাদেশের অনলাইন ভিত্তিক ব্যবসার নিয়ম-নীতি।

বিক্রয়যোগ্য পণ্য নির্বাচন

পণ্য বাছাই করুন

অনলাইনে পণ্য বিক্রয় করার উপর অভিজ্ঞতা না থাকলে বিক্রয়যোগ্য পণ্য নির্বাচন করাটা একটু সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে। আমি ব্যাক্তিগত ভাবে মনে করি অনলাইনে ব্যবসা শুরুর আগে রিসার্স করাটা জরুরি। একমাত্র সার্ভে করার মাধ্যমে জানা সম্ভব কোন ধরনের পণ্য বিক্রয় করার জন্য বাছাই করাটা আপনার জন্য ভালো হবে।

অনলাইন ভিত্তিক ই-কমার্স ব্যবসায়িক আইডিয়া

  • হাতের কাছে পাওয়া যায় এমন পণ্য নির্বাচন করবেন না। কারন এই সকল পণ্য অনলাইন মার্কেট প্লেস থেকে মানুষ ক্রয় করতে চায় না। সুতরাং খুব সহজে পাওয়া যায় না এমন পণ্য নির্বাচন করুন।
  • চেষ্টা করুন অল্প দামে ভালো মান সম্নত পণ্য দেওয়ার জন্য। প্রথম দিকে লাভ করার চিন্তা বাদ দিন। এবং প্রথম অবস্থায় দামি পণ্য বিক্রয় না করাই ভালো হবে।
  • সৌখিন জাতিয় পণ্য বাছাই করুন অনলাইনে বিক্রয় করার জন্য। যেমন সুন্দর ওয়ালমেট, বেড রুমের শোভা বাড়ায় বা ডাইনিং রুমের শোভা বাড়ায় এমন সব পণ্য। কারন Psychology এক গবেষনায় দেখা গেছে শতকরা ৭৫% মানুষ তার বেড রুমকে সুন্দর রাখতে চায়।
  • খাদ্য জাতিয় পণ্য বাছাই করতে পারেন অনলাইনে ব্যবসার জন্য। কারন পৃথিবীতে যত ধরনের অর্থনৈতিক মন্দা হোক না কেন খাদ্য বিক্রয় করার ব্যবসায় তা কখনো প্রভাব বিস্তার করতে পারে না। এটা আমরা কথা নয়, গবেষকদের কথা। যদিও খাদ্য দ্রব্য অনলাইনে বিক্রয় করার ক্ষেত্রে অনেক সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়।
  • লোকাল পণ্য বাছাই করতে পারেন অনলাইনে ব্যবসা করার জন্য। ধরুন আপনার এলাকায় খুব ভালো খেজুর গুর পাওয়া যায়। এখন এই গুর যদি অনলাইন বা ইন্টারনেটের মাধ্যমে সারা বাংলাদেশে ছরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন তাহলে ভালো হয়।

অনলাইনে ব্যবসা করার মার্কেটিং উপায়

পণ্য মার্কেটিং করুন

মার্কেটিং, অনলাইন ব্যবসার সফলতার মূল মন্ত্র। সঠিক ভাবে মার্কেটিং করতে না পারলে অনলাইন ব্যবসায় সফলতা পাওয়া সম্ভব নয়। এখন প্রশ্ন হচ্ছে কি ভাবে মার্কেটিং করা শুরু করবেন। চলুন স্টেপ বাই স্টেপ আলোচনা করা যাক……………….

  • যেহেতু প্রতিটি পণ্যের ধরন ভিন্ন ভিন্ন হয় সেহেতু প্রচারনা ভিন্ন ভিন্ন হবে। যদি মনে করেন পণ্যের ভিডিও বা ছবি ধারন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করলেই হবে। তবে এটা আপনার সম্পূর্ণ ভুল ধারনা, প্রচারনার জন্য।
  • পণ্যের প্রচারের জন্য সঠিক প্লাটফর্ম বাছাই করা খুবেই গুরুত্বপূর্ণ। কারন কিছু ক্ষন আগেই আমি বলেছি, প্রতিটি পণ্যের এড যেমন ভিন্ন ভিন্ন হয় তেমনি পণ্যের প্রচারনার জন্য প্লাটফর্ম ভিন্ন হয়। ধরুন আপনি হাই কোয়ালিটির কসমেটিক পণ্য বিক্রয় করতে চাইছেন সেই ক্ষেত্রে আপনার এডের মাধ্যম কী হওয়া উচিত। আমার ব্যক্তিগত মার্কেটিং অভিজ্ঞতা অনুসারে Instagram influencer এক্ষেত্রে উপযুক্ত মাধ্যম হবে।
  • লোকাল পণ্য বিক্রয় করতে চাইলে ফেসবুক মার্কেটিং করাটা যুক্তিযুক্ত হবে। এবং আপনি লক্ষ করলে দেখবেন যে, ফেসবুকে এডে ৮০% লোকাল প্রডাক্ট দেখা যায়।
  • ফেসবুকে ভিডিও এড সব থেকে বেশি কাস্টমার জেনারেট করে। চেষ্টা করবেন ফেসবুকে ভিডিও এড বুষ্ট করার জন্য। ভিডিও এডে মানুষের বিশ্বাসযোগ্য বৃদ্ধি করে।
  • মার্কেটিং বাজেট নির্ধারন করে নিবেন প্রচারনার পূর্বে। এবং কোন কোন প্লাটফর্মে মার্কেটিং করবেন তার লিষ্ট তৈরি করে নিবেন। প্রথম অবস্থায় বাজেট ২০ ডলার হতে ৩০ ডলারের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখবেন।

বি.দ্রঃ আপনি একজন মধ্য শ্রেনির ব্যবসায়ি হলে ওয়েবসাইট তৈরি না করে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে ব্যবসা করার চেষ্টা করুন। আর আপনার ইনভেস্টমেন্ট ভালো হলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। আমরা ই-কর্মাস ওয়েবসাইট তৈরি সহ যাবতীয় কাজ করে থাকি।

অনলাইনে ব্যবসা করার সেরা আইডিয়া

পণ্যের প্যাকেজিং এবং ডেলিভারি

Product Packaging

পণ্যের ধরনের উপর নির্ভর করে প্যাকেজিং এবং ডেলিভারি বিষয়টি নির্ধারন করবেন। পণ্যের প্রকার অনুযায়ি প্যাকেজিং করতে হবে। কাস্টমারের কাজে পণ্য পৌচ্ছানো পর্যন্ত যেন পণ্য ভালো থাকে সেই দিকে খেয়াল রাখবেন।

চেষ্টা করবেন অনলাইনে ব্যবসা শুরু প্রথম থেকেই নিদিষ্ট প্যাকেজিং করার। প্যাকেজিং আপনার পণ্যের ব্রান্ড এবং মূল্যায়ণ স্থাপনের জন্য সহযোগিতা করবে।

পণ্য ভালো করে প্যাকেজিং করে ডেলিভারি দিলে নতুন কাস্টমাররা পণ্য ক্রয় করার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করবে। এবং পণ্য ডেলিভারি দেওয়ার কাজটি তৃতীয় কোন মাধ্যম দ্বারা করলে ভালো হয়।

এখানে অনলাইনে ব্যবসার আইডিয়া বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা

পণ্য ফেরত

আপনি যখন কোন অনলাইনে ব্যবসা চালু করবেন তখন পণ্য ফেরতের বিষয়টি মাথায় রাখবেন। প্রথম অবস্থায় একটি নিময়-নীতি তৈরি করবেন পণ্য ফেরত নেওয়ার ক্ষেত্রে। এবং কাস্টমার যখন পণ্য ক্রয় করবে তখন ক্রেতাকে সেই নিয়ম-নীতি অবগত করবেন যেন পরর্বতীতে কোন ধরনের সমস্যার সৃষ্টি না হয়।

আপনি একটি ফ্রি ব্লগ সাইট ওপেন করে সেখানে পণ্য আপলোড এবং নিয়ম-নীতি লিখে রাখবেন। কাস্টমার পণ্য আর্ডার করার সময় সেই ওয়েবসাইটের লিং প্রভাইড করবেন।

ব্লগ সাইট তৈরি প্রফেশনাল ফ্রি কোর্স পেতে আমাদের সাথে যোগযোগ করতে পারেন।

অর্থ গ্রহন

অর্থ গ্রহন করুন

বাংলাদেশে সাধারনত পে-অন ডেলিভারি সাভির্স ভালো চলে। সুতরাং চেষ্টা করুন প্রথম থেকে পে-অন ডেলিভারি দেওয়ার। কারন আপনার পণ্য যদি ভালো হয় তাহলে টাকা দুই দিন আগে বা পরে নেওয়ার ক্ষেত্রে আপনার কোন যায় আসবে না।

আর একটি বিষয়, পণ্যের মান ভালো রাখার ক্ষেত্রে কোন ধরনের সমঝোতা করবেন না। কারন পণ্যের মান ভালো না হলে অনলাইনে ব্যবসা করা সম্ভব নয়।

একজন মানুষ পণ্য ক্রয় করার পর ভালো রিভিউ দিলে বিক্রয় বৃদ্ধি পাবে। তবে খারাপ রিভিউ দিলে ব্যবসা হবে না।

ফ্রি প্রফেশনাল ব্লগিং কোর্স

অনলাইন ভিত্তিক ব্যবসার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম-নীতি

ব্যবসায়িক নিয়ম-নীতি

বাংলাদেশ সরকার ২০০৯ সালে সর্ব প্রথম ই-কমার্স ব্যবসায়িক পলিসি প্রদান করেন। এবং প্রতিটি ই-কমার্স প্রতিষ্টানকে একটি নিদিষ্ট সীমার মধ্যে নিয়ে আসা হয়েছে।

আপনি চাইলে নিচের দেওয়া লিংকে ক্লিক করে বাংলাদেশ সরকারের ই-কমার্স পলিসি দেখতে পারেন।

Bangladesh E-commerce Law

আপনি অবশ্যই ভালো থাকবেন। যে কোন ধরনের তথ্য দিয়ে আপনাকে সহযোগিতা করতে পারলে নিজেকে খুব ভালো লাগবে।

এবং পণ্যের প্রচারণা করার জন্য কোন ধরনের সহযোগিতা লাগলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করবেন।

বিস্তারিত আরও পড়ুর